তৃতীয় লিঙ্গ

একজন কবিতা-কুটুম্ব's picture
রক্তিম

- অসিত কুমার রায় (রক্তিম)
ওদের মানুষ বলেই জানি
কেউ বলে মঙ্গল কেউ অমঙ্গল,যাত্রা শুভ অশুভ।
জন্মলগ্নে নির্ধারণ হয়ে যায় সে পুরুষ না নারী।
কেউ বলে লক্ষ্মী এলো ঘরে
কেউ বলে বংশ রক্ষা হবে মিষ্টি বিতরণ করো।
কখনো কখনো এমন শুনে আঁতকে ওঠে কেউ।
ও যে তৃতীয় লিঙ্গ ছিঃ ছিঃ

ওদের আশায় সবটা কালো দাগ এঁকে দেয় সমাজ।
যেন অন্য কোন গ্রহের, পায় যথেষ্ট অবহেলা
দেওয়া হয় সকাল সন্ধ্যে নিত্য যন্ত্রণা।
সমাজ ছেড়ে বাধ্য হয় খুঁজে নিতে
অন্য এক জীবন।
ওদেরও আছে প্রেম ভালবাসা জীবন মৃত্যু
আমরা বুঝেও বুঝিনা রহস্য খুঁজি সবেতে।

ওরাও আজ ভীষণ লড়ছে
উঠে আসছে একে একে সামনের সারিতে।
মানুষের নজর আরও উদার হোক।
প্রকৃতির বৈচিত্র্য রূপকে স্বীকার করে নিক
ওরা আদিতে ছিল
রয়ে গেছে ইতিহাসের পাতায় পাতায়;
ওরাও থাকবে এই বিশ্ব সংসারে জুড়ে।

মল্লিকা রায়'s picture
তৃতীয় লিঙ্গদের বর্তমানে

মল্লিকা রায় 3 সপ্তাহ 4 দিন আগে

তৃতীয় লিঙ্গদের বর্তমানে ঢালাও সরকারী বন্দোবস্ত। তাদের লবিতে আনন্দ,ঐশ্বর্য, শিল্প, খ্যাতির ছড়াছড়ি লিঙ্গ প্রভেদে তারাও তো মানুষ, সাধারণ মানুষ হিসেবে আমাদের দেবারও কিছুই নেই। মাইকেল জ্যকসন কিন্তু আমার প্রিয় শিল্পী।
আমাদের বন্ধু রানু দি ওদের নিয়ে এসোশিয়েশন করছেন। ????????????

আমার অসংখ্য অভিনন্দন জানবেন।

.....

মল্লিকা রায়/Mallika Roy.

শাহনূর's picture
অনেক ধন্যবাদ তোমাকে এমন একটা

শাহনূর 3 সপ্তাহ 4 দিন আগে

অনেক ধন্যবাদ তোমাকে এমন একটা ইস্যু বেশ সুন্দর করে তুলে ধরার জন্য!

ASIT KUMAR ROY's picture
মান্তিপিসীর কথা খুব মনে পড়ছে।

ASIT KUMAR ROY 3 সপ্তাহ 3 দিন আগে

মান্তিপিসীর কথা খুব মনে পড়ছে। নদীয়ার তেহট্ট গ্রাম থেকে কলকাতা শহরে সদ্য আসা এক শিশু।বাবার যে শহরে চাকরি তাই পুরো পরিবার ঠাই এখন এক চিলতে টুকরো ঘরে। দেশের আতচালা ছেড়ে গাড়ি ঘোড়া ইট কাঠ পাথরে আমি হাঁফিয়ে উঠতাম তখন আমার কাছে একমাত্র অয়েশিশ এই পিসী। শহুরে কথায় অভ্যস্ত হতে সময় লেগেছিল।আমার কথায় বন্ধুরা চরম হাসত।কথা বলার ভঙ্গী নাকি অদ্ভুতুরে। আমি যেন ছিলাম হাসির মজার খোরাক। কথাগুলো এমন ছিল...'মা... কর্পোরেশনের জল চিকন হয়ি গিছে', "আমি না বালতিটা নলের কাছে থুয়ে এয়ছি মা..." এই যাহ হাতের থালখান মাটিতে পড়ি গ্যালো ঝনঝন করি। ''মা এসি যাবে আখায় একুন আগুন জ্বালছে।'' এই যে শব্দ চিকন, থুইয়ে, থাল, আখা, বুযেঁ, কনট্রোল(রেশন)এমন অনেক কিছু ওরা শুনলেই হাসির ফোয়ারা ছোটাত, বারবার শুনতে চাইত -এই আবার বল আবার বল,আমি বলতাম ওমনি উত্তাল প্রবল সমুদ্র হাসি। আমার অপরাধ বুঝতাম না চোখে জল এসে যেত। ওদের চাপে পিছু হটতে হটতে ক্রমশ আমি কোণঠাসা। তখন মান্তিপিসি এসে বারবার বাঁচিয়ে দিত। বলে উঠত তোরা এমন কেন করছিস? ও ওর মাতৃভাষায় বলছে, ওর কথা বলার টান ভাষাকে সম্মান কর। কেননা সাত্যকি ওর মায়ের কোলে বসে যে কথা শিখেছে তাই বলছে। ওই একদিন শহুরে ভাষা তোদের শেখাবে দেখে নিস।পিসীকে তখন মনে হত যেন সাক্ষাৎ স্বরসতী..আজ মাতৃভাষা দিবসে সেই পিসী এখন কোথায় আছে! কি জানে!

সুমন্ত রাহা's picture
গুরুত্বপূর্ণ বিষয়

সুমন্ত রাহা 3 সপ্তাহ 2 দিন আগে

গুরুত্বপূর্ণ বিষয়

সুমন্ত রাহা's picture
মান্তিপিসীর কাহিনী

সুমন্ত রাহা 3 সপ্তাহ 2 দিন আগে

মান্তিপিসীর কাহিনী হৃদয়স্পর্শী



নতুন মন্তব্য পাঠান

  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <b> <font color> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <small>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • You may use [inline:xx] tags to display uploaded files or images inline.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.
  • You may use <swf file="song.mp3"> to display Flash files inline